Tuesday, December 17, 2013

কালোজাম

কলা  আপেল লেবু  আমড়া

তাদের থেকেও ভালো

রসে ভরা জামের তোড়া

রংটি নিকষ কালো ।


তেমনি  এক জামের কথা

শুনতে পাবেন এখানে

সমাজে যার শীর্ষ মাথা

(উচ্চ)ন্যায়ালয় যেখানে।
 

তিনকুড়ি দশ বয়স পেরিয়ে  

থাকেন  ব্যস্ত কাজে  

চাকরি করেন কমিশনে

মানবাধিকারের মাঝে।
 

খুনি, ভণ্ড আর  আইনকারক

(পক্ষপাতে শেষের যারা  দুষ্ট)

সবাই ত্রস্ত; এই  বিচারক

না হয় যেন রুষ্ট ।
 

তারপরেতে  যখন তখন

হিল্লি দিল্লি ছোটেন

প্রাতরাশে টোস্ট-মাখন ,

হোটেলে রাতে থাকেন।

 
বঙ্গতনয় মানুষ রসিক

বিবিধ প্রেম-ভালোবাসা

ফুটবল তার  প্রাণাধিক!

তেমনি সুরাপানেও  খাসা ।

 
শিক্ষানবীশ সব সুন্দরীদের

হাত ধরিয়ে  কাজ শেখান

 মনগড়া সব রাতপরীদের

 পাশে বসে   বিচার লেখান।  
 

সব কিছুই বেশ ছিলো  ভালো

(হঠাৎই) মেঘ ঘনিয়ে আসে

যেরাতে মদ, ফুটবল আর নাত্নীসম

শিক্ষার্থী যায় মিশে।  
 
 
দয়ালু যীশুর জন্মদিনে

কামতাড়নার চোটে

হাত ভরে দেন চুম্বনে

যদিও লক্ষ্য ছিল ঠোঁটে ।

 
বলেন, “তোমাকে খুব ভালো লাগে,

আমি সত্যি ভালোবাসি,

চলো, শোবার ঘরে আমরা বসে

কাজটা সেরে আসি”।

 
জজ-দাদুর মতলবেতে  

যুবতী  নিমেষে ত্রস্ত,

সেরাতে ও সেই মুহূর্তে

বিচারকের সূর্য গেল অস্ত ।

 
লিফট্ দিয়ে তড়তড়িয়ে

হোটেল-লবিতে নেমে,

শীতের রাতেও ঝড়ঝড়িয়ে

ভয়ে, শরীর ভরে ঘামে।  
 

ট্যাক্সি ধরে বাড়ী এসে

করে সব যোগাযোগ ছিন্ন ;

একটি বছর চুপটি বসে

যুবতীর কন্ঠস্বর হয় ভিন্ন ।  

 
নিজের ব্লগে করে নালিশ

“যৌন পীড়নের শাস্তি হোক”;

ঊচ্চ ন্যায়ালয় দেয় সুপারিশ

আজ, কাঠগড়ায় তাই বিচারক।  

 
বোধহয়, ভোটের আগে দাবার খেলা

রাজনীতিকদের মধ্যে ,

চলছে নৈতিকতার ছলাকলা

তাই লিখেছি পদ্যে।

 
তাই কবির মতে অবশেষে

বলি, সাবধানেতে থাকবেন;

কালোজাম বুড়িয়ে  গেলে

ডাস্টবিনেতে ফেলবেন।

No comments: